ঈদ পূণর্মিলনি ও সাধারণ সভা সেন্টমার্টিন বাজার দোকান মালিক সমবায় সমিতির

11

হাবিব মেম্বার সেন্টমার্টিন থেকে :: গত ৯ জুন সেন্টমার্টিন বাজারে নারিকেল জিনজিরা রেস্তোরাঁয় সেন্টমার্টিন বাজার দোকান মালিক সমবায় সমিতির উদ্দোগে ঈদ পূণর্মিলনি ও সাধারন সভা অনুস্টিত হই।উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমিতির সদস্য ও সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান  জনাব আলহাজ্ব নুর আহমদ।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান জনাব আলহাজ্ব মৌলানা ফিরুজ আহমদ খান,জনাব আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান মেম্বার,জনাব রশিদ আহমদ সভাপতি সেন্টমার্টিন সার্ভিস বোট মালিক সমবায় সমিতি লি: ও সাধারন সম্পাদক  জনাব সৈয়দ আলম,জনাব নুর আহমদ সভাপতি সেন্টমার্টিন মৎস্য ব্যাবসায়ী সমিতিসহ  অনেকে।

সমিতির সাধারন সম্পাদক জনাব জনাব মৌলানা ওসিম উদ্দিন ও সদস্য জনাব এম এ রহিম সভা পরিচালনা করেন।সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি জনাব আব্দুর রহমান (সাবেক মেম্বার )।উপস্হিত ছিলেন সমিতির প্রায় ষাট জন মত সাধারন সদস্য।
আলোচনায় সমিতির বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহিত হই।তারমধ্যে আগামী পর্যটন মৌসুমে দ্বীপের কয়েকটি সমিতি একত্রিত হয়ে একটি বিলাশবহুল পর্যটন জাহাজ টেকনাফ সেন্টমার্টিন নৌরুটে সার্ভিস দেয়ার সিদ্দান্ত হই।তাতে দ্বীপের চেয়ারম্যান সাহেবের নেতৃত্বে ভাল একটি পর্যটনবাহী জাহাজ দেখা ও প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনার সিদ্ধান্ত গৃহিত হই।সভায় দ্বীপের ও দোকান মালিকের বেশকিছু সমস্যবলীর কথা প্রধান অতিথি জনাব চেয়ারম্যান সাহেবকে অবহিত করা হয়।তিনি সকল অতিথি ও সদস্যদের আশ্বস্হ করেন সকল সমস্যা সমাধানের।এবং আগামী পর্যটন মৌসুমে দ্বীপে সরকার কর্তৃক পর্যটক সীমিতকরন বাজর ও দ্বীপের পরিস্কার পরিচন্নতা ও পর্যটকদের সেবার মান নিয়েও বিশদভাবে আলোচনা করা হয়।অপরদিকে সরকার কর্তৃক ৬৫ দিন ফিশিং বন্ধ ও পর্যটন মৌসুম বন্ধ থাকায় দ্বীপবাসীর অর্থনৈতিক করুন পরিনতির কথাও আলোচনায় ঝড় তুলে।এই দুটি ব্যাবসা ছাড়া আর কোন কাজ না থাকায় দ্বীপের মানুষ চরম কস্টে জীবনজাপন করছে।তাই সভার পক্ষ থেকে সরকারের কাছে আবেদন জানানো হই যেন দ্বীপের এই অবহেলিত মানুষগুলির জন্যে স্পেশাল বরাদ্দের জন্য।পরিশেষে সমিতির সভাপতির সমাপনির বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সভা সমাপ্ত ঘোষনা করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here